জেনে নিন কোরিয়া সার্কুলার ২০১৯ এবং কোরিয়া অনলাইন রেজিস্ট্রেশন এর বিস্তারিত । দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০১৯ আবেদন চলছে।

আবার এসেছে সরকারি ভাবে অল্প খরচে কোরিয়া যাওয়ার উপায় 2019, দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০১৯। কোরিয়ান সরকারের ইপিএস প্রোগামের আওতার শ্রমিক হিসাবে দক্ষিণ কোরিয়া যেতে, কোরিয়া সার্কুলার ২০১৯ হয়েছে এবং আবেদন প্রক্রিয়া চলছে। এবছর দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার জন্য কোরিয়া অনলাইন রেজিস্ট্রেশন সার্কুলার ২০১৯ ঘোষণা করা হয়েছে গত ৫ই মার্চ ২০১৯। এ বছর কোরিয়া সার্কুলার ২০১৯ তে উল্লেখ আছে যে প্রাথমিক ভাবে ভাষা পরীক্ষার জন্য ৮৪০০ জন কে লটারির মাধ্যমে মনোনীত করা হবে। এ বছর ১১ই মার্চ সকাল ১০ টা থেকে এবং ১২ই মার্চ ২০১৯ মঙ্গল বিকাল ৫টা পর্যন্ত আবেদন করবে লক্ষ লক্ষ প্রার্থী, বোয়েসেল এর ওয়েব সাইটে https://eps.boesl.gov.bd/ এর মাধ্যমে। যার মধ্য থেকে কোরিয়া লটারি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হবার পরে প্রাথমিক ভাবে লটারিতে বিজয়ী ঘোষণা করা হবে ৮৪০০ জন কে। এবছর কোরিয়া সার্কুলার ২০১৯ এর বিজ্ঞপ্তি বোয়েসেলের ওয়েবসাইট WWW.BOESL.GOV.BD মাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই প্ল্যানেট বাংলা প্রকাশ করা হয়েছে।



দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০১৯- কোরিয়া অনলাইন রেজিস্ট্রেশন এবং সার্কুলারের বিস্তারিত দেখুন এখান থেকে




দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০১৯ -কো‌রিয়ায় গিয়ে মা‌সে দুই লাখ টাকা আ‌য়ের সু‌যোগ দেখুন




দক্ষিণ কোরিয়া লটারি রেজাল্ট ২০১৯ – কোরিয়া লটারির ফলাফল দেখুন

 

দক্ষিণ কোরিয়া লটারি স্পেশাল সিবিটি – ২য় বার কোরিয়া যেতে বিস্তারিত দেখুন

Korea Job Circular 2019 – online Lottery Result 2019

 

Korean Language Institute Dhaka

Korean Language Institute Dhaka

 

এছাড়া ১৯ ক্যাটাগরিতে কর্মী নেবে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ সম্পর্কে বিস্তারিত দেখুন এই লিঙ্কে

 

কোরিয়ান চাকরির সার্কুলার ২০১৯ – কোরিয়া যাওয়ার উপায় 2019

দক্ষিণ কোরিয়া যাবার জন্য কোরিয়া ডিভি লটারি সার্কুলার ২০১৯ ঘোষণা করা হয়েছে গত ৫ই মার্চ ২০১৯। বোয়েসেল করিয়া লটারি ২০১৯ সম্পর্কে বিস্তারিত দেখে নিন এখান থেকে।



কোরিয়া চাকরির অনলাইন রেজিস্ট্রেশন বিজ্ঞপ্তি ২০১৯

 

 

রেজিস্টেশন ফর্মঃ

ইপিএস ভিসায় বোয়েসেলের মাধ্যমে দক্ষিণ কো‌রিয়া যাওয়ার উপায় 2019 – কোরিয়া যাবার পর্যায়ক্রমিক ধাপ সমুহঃ

কোরিয়ায় চাকরির বিজ্ঞপ্তি অনুসারে সরকারি ভাবে মাত্র ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ ২০ হাজার টাকায় ওয়ার্ক ভিসায় কোরিয়া যেতে চাইলে আপনাকে নিচের পদ্ধতি গুলো পর্যায়ক্রমে অনুসরণ করতে হবে। এই পদ্ধতি গুলোর স্টেপ বাই স্টেপ শেষ করতে পারলেই কেবল মাত্র আপনি দক্ষিণ কোরিয়ায় ওয়ার্ক ভিসায় যেতে পারবেন।
১) কোরিয়া ভিসা অনলাইন রেজিস্ট্রেশন সার্কুলার প্রকাশ
২) সার্কুলার প্রকাশিত হওয়ার পরে নির্ধারিত দিনে অনলাইনে আবেদন
৩) অনলাইনে আবেদনের পরিপেক্ষিতে লটারির মাধ্যমে নির্ধারিত কোটা অনুসারে কোরিয়া লটারি রেজাল্ট ঘোষণা
৪)কোরিয়া লটারিতে বিজয়ীদের বাংলাদেশ অভারসিজ লিমিটেড বোয়েসেল এর মাধ্যমে নির্ধারিত ফি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন।
৫)রেজিস্ট্রেশন কৃত কোরিয়া গমনেচ্ছুক প্রার্থীদের ভাষা পরীক্ষা।
৬) ভাষা পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের শারীরিক দক্ষতা পরীক্ষার
ভাষা পরীক্ষা ও দক্ষতা পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা।
৭) পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের এইচ আর ডি কোরিয়ার মাধ্যমে জব রোস্টার ভুক্ত
৮) জব রোস্টারে অন্তর্ভুক্তদের কোরিয়ায় নির্ধারিত কোম্পানি থেকে জব অফার
৯) বাংলাদেশ কোরিয়া টেকনিক্যাল ইন্সটিটিউট থেকে ৪/৫ দিনের প্রশিক্ষনে অংশ নিতে হবে
১০) বোয়েসেলের মাধ্যমে মেডিক্যাল টেস্টে অংশ নিতে হবে
১১) ১ লক্ষ টাকা ফেরতযোগ্য জামানত হিসাবে বোয়েসেলের একাউন্টে ১ লক্ষ টাকা জামানত রাখার জন্য ব্যাংক ড্রাফ্‌ট করতে হবে।
১২)নির্ধারিত দিনে কোরিয়া গামী প্লেনে করে কোরিয়া গমন।

 

কোরিয়া অনলাইন রেজিস্ট্রেশন

গত বছরের কোরিয়া রেজিস্টেশন ২০১৮ শেষে গত ৬ই মার্চ ২০১৮ মঙ্গলবার দুপুর ২ টায় কোরিয়া লটারি ২০১৮ এর ড্র অনুষ্ঠিত হয় এবং ঐ দিন বোয়েসেল এর ওয়েব সাইট ফলাফল প্রকাশ করা হয়। তবে গত বছর থেকে প্রার্থী বাছাই পদ্ধতিতে পরিবর্তন এসেছে যা রিক্রুটমেন্ট পয়েন্ট সিস্টেম নামে পরিচিত।



নতুন পদ্ধতিতে রিক্রুটমেন্ট পয়েন্ট সিস্টেমে ভাষা টেস্টের জন্য রেজিস্টেশন কারীদের প্রার্থীদের মাঝ থেকে লটারি তে বিজয়ীদের ১ম রাউন্ডের ভাষা টেস্ট এবং দ্বিতীয় রাউন্ডের স্কীল ও কম্পিটেন্সি টেস্ট এর স্কোর যোগ করে চূড়ান্ত প্রার্থীদের নির্বাচিত করা হবে।

রিক্রুটমেন্ট পয়েন্ট সিস্টেম হলো শধুমাত্র কোরিয়ান ভাষায় দক্ষতা নয় শারীরিক যোগ্যতা (কালার ব্লাইন্ডনেস, কালার উইকনেস থাকলে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ করানো হবে না, ডিস্ক বিচ্যুতি, হাতের আঙ্গুল কাটা ইত্যাদি শারীরিক সমস্যার ক্ষেত্রে কাজের সক্ষমতা বিবেচনা করে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ করানো নাও হতে পারে), প্রযুক্তিক দক্ষতা, কর্মদক্ষতা ও অভিজ্ঞতা ইত্যাদি সামগ্রিকভাবে মূল্যায়ন করার রিক্রুটিং সিস্টেম।

উল্লেখ্য যে মাত্র ৮০ হাজার টাকা খরচ করে সরকারি ভাবে দক্ষিন কোরিয়া যাবার জন্য কোরিয়া সরকারের ইপিএস ভিসা বাংলাদেশ তথা সারা বিশ্বের ১৬ টি দেশে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর নির্দিষ্ট সংখ্যক লোক কোরিয়ান ওয়ার্ক ভিসায় কোরিয়ার গিয়ে থাকেন ।

১ম রাউন্ডের সারসংক্ষেপঃ

২য় রাউন্ড পরীক্ষা (স্কীল টেস্ট ও কম্পিটেন্সি টেস্ট)

স্কীল টেস্ট সারসংক্ষেপঃ

কম্পিটেন্সি টেস্টঃ

নতুন যোগ হওয়া কম্পিটেন্সি টেস্টের জন্য প্রার্থীকে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং কাজের অভিজ্ঞতার সনদ জমা দিতে হবে।




 

bangladesh open university result 2018

 

বোয়েসেল কোরিয়া সার্কুলার ২০১৯ পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করুন

Download Korea Registration Circular

 

কোরিয়া রেজিস্ট্রেশন ২০১৯

কোরিয়া লটারি রেজিস্ট্রেশন ২০১৯




বোয়েসেল অফিশিয়াল লিংক – www.eps.boesl.org.bd

 

আবেদন করুন

 

 

কোরিয়া লটারি 2019 ফলাফল এবং কোরিয়া যাবার পরবর্তী ধাপ সবই দেখুন





এছাড়া ইপিএস ভিসায় কোরিয়া যেতে নিচের লিঙ্কে পাবেন বিস্তারিত।

ইপিএস EPS ভিসায় দক্ষিন কোরিয়া যেতে চাইলে জেনে নিন বিস্তারিত

সংযুক্ত আরব আমিরাতে নতুন ভিসা – দুবাই ভিসা ২০১৯ সম্পর্কে বিস্তারিত দেখুন এই লিঙ্কে

পোস্ট টি ভাল লাগলে শেয়ার করে অন্যদেরকেও জানার সুযোগ করে দিন এবং আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০১৯ সহ দক্ষিন কোরিয়া ভিসার সকল আপডেট দেখুন

 

প্লানেট বাংলার সকল আপডেট নিয়মিত পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন

প্ল্যানেট বাংলা ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত ভিডিও দেখতে আমাদের চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

প্ল্যানেট বাংলায় প্রকাশিত বিভিন্ন পোস্টের আপডেট পেতে আমাদের টুইটার পেজ ফলো করুন

 

প্ল্যানেট বাংলা job ডেস্ক

Planet Bangla – সফল জীবন সহজ ভুবন