World Health Organization বা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে প্রাপ্ত তথ্য মতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের মৃদু থেকে শুরু করে বিভিন্ন রকম উপসর্গ বা লক্ষন দিতে পারে। এই লেখা থেকে আমরা জেনে নেব করোনা ভাইরাসের লক্ষণ গুলো কি কি?

করোনা ভাইরাসের লক্ষন কি কি

করোনা ভাইরাসের লক্ষণ- প্রাথমিক অবস্থায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মাঝে অবসন্নতা, জ্বর, কাশি, গলাব্যথা, মাংসপেশিতে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট, এই লক্ষণ গুলোর যে কোন একটি বা একাধিক দেখা দিতে পারে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে আক্রান্ত মানুষের এই লক্ষণ গুলোই দেখা যাচ্ছে। তাই এগুলোই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের লক্ষণ বা উপসর্গ বলেই বলা হচ্ছিল। কিন্তু গত কিছুদিনে স্বাদ ও গন্ধহীনতা করোনা ভাইরাস এর নতুন লক্ষণ বা উপসর্গ হিসেবে দেখা দিয়েছে। ফ্রান্সের স্বাস্থ্য বিভাগ এবং যুক্তরাজ্যের নাক, কান ও গলাবিষয়ক চিকিৎসকদের অ্যাসোসিয়েশন ইএনটি সম্প্রতি এই তথ্য দিয়েছে। তাই আপনার যদি উপরোক্ত কোন একটি বা একাধিক উপসর্গ দেখা দেয় তবে আইইসিডিআর এর হটলাইন নাম্বারে যোগাযোগ করুন এবং নিজেকে অন্যদের সংস্পর্শ থেকে দূরে রাখুন।

 নিচের বিবিসির ভিডিও থেকে দেখুন করোনা ভাইরাসের লক্ষণ এবং প্রতিকার

চলুন দেখে নিই করোনা ভাইরাসের লক্ষণ গুলো বিস্তারিত

কোভিড -১৯ (করোনা ভাইরাস) এর লক্ষণগুলি কী কী?

(করোনা ভাইরাস) কোভিড ১৯ এর সর্বাধিক পরিচিত লক্ষণগুলো হল সাধারন জ্বর, অবসাধ এবং শুকনো কাশি। কিছু রোগীর ক্ষেত্রে সর্দি, নাক, গলা ব্যথা বা ডায়রিয়া হতে পারে। এই লক্ষণগুলি সাধারণত ধীরে ধীরে দেখা দিতে শুরু করে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে করোনায় আক্রান্ত কিছু রোগী পাওয়া গেছে যাদের মাঝে উপরোক্ত কোনও লক্ষণ প্রকাশ পায়নি এমনকি তারা কোন রকম অসুস্থ বোধও করেনি। সাধারণত বেশিরভাগ লোক (প্রায় ৮০%) বিশেষ কোন চিকিত্সার প্রয়োজন ছাড়াই নিজ থেকেই সেরে ওঠে।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত COVID-19 এর রোগীদের ক্ষেত্রে দেখা গেছে গড়ে প্রতি ৬ জনের মধ্যে ১ জন গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে এবং শ্বাস নিতে অসুবিধা বোধ করে। তবে বয়স্ক ব্যক্তি এবং যাদের উচ্চ রক্তচাপ, হার্টের সমস্যা বা ডায়াবেটিসের সমস্যায় ভুগছেন তাদের করোনায় আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি যারা জ্বর, কাশি এবং শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যাযুক্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

 

আরও দেখুন